সাইকোলজি

সাইকোলজি

ফরেক্সে সাইকোলজি হচ্ছে একটি উৎকণ্ঠিত বিষয়। সাইকোলজিক্যাল বিষয়সমূহ ট্রেডারের পারফর্মেন্সের ওপর প্রভাব ফেলে আবেগ আমাদের মার্কেটের প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি এবং ঠাণ্ডা-মাথায় চিন্তার ওপর প্রভাব ফেলে। মাঝেমাঝে উচ্চ-মানের, অনেক অভিজ্ঞ এবং দক্ষ ট্রেডাররাও ট্রেডের সময় তাদের আবেগের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। কেউই ত্রুটিহীন নয়। আর আমাদের বলতে হচ্ছে যে মার্কেট, এসকল খামখেয়ালী প্রাণীদের, যারা পরিশ্রমবিমুখ, নিজেদের দক্ষতাকে বেশী মনে করে তাদের শাস্তি দেয়। তাই, যাতে শাস্তি না পেতে হয় সেজন্য ট্রেডারদের নিজেদের আবেগের ওপর নিয়ন্ত্রণ আনতে হবে।

বিপদজনক সেই আবেগগুলো কি??

দুশ্চিন্তা, ভয় এবং আতঙ্ক

দুশ্চিন্তা হচ্ছে ট্রেডারদের সবচেয়ে খারাপ শত্রু। এটা তাদের এমন ধারনা দেয় যে তাদের ট্রেডিং স্ট্রাটেজির ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও তারা আয় করতে ব্যার্থ হবে। তাই, বড় ধরনের লাভ এবং প্রচুর পরিমানে আয়ের পরিবর্তে, তারা ঝুঁকিপূর্ণ ট্রেড নেয় না, অথবা অপেক্ষা না করে তাড়াতাড়ি পজিশন বন্ধ করে দেয় আর তারা তাদের প্রাথমিক টার্গেটের জন্য অপেক্ষা করতে পারে না। নতুন ট্রেডারদের জন্য এটি সবচেয়ে বেশী করা ভুল। 

এছাড়াও, কষ্টের-উপার্জিত আয় করা মানুষরাও এর থেকে নিরপেক্ষ নয়। তারা এই অপেক্ষায় বসে থেকে চেয়ে দেখে না যে কিভাবে তাদের ট্রেড তাদের বিরুদ্ধে কাজ করছে। তারা এধরনের সমস্যা থেকে বের হওয়ার জন্য কিছু করার চেষ্টা করতে পারে। আর তারা যদি না জানে যে এধরনের চাপের মধ্যে কি করতে হবে এবং আতঙ্কিত হয়ে যায় এবং হিট অথবা মিস অ্যাকশনের পন্থা অবলম্বন করে যা সাধারনত আর্থিক লসের কারন হয়। মার্কেটে ভলাটিলিটির সময় সাধারনত এধরনের অযৌক্তিক কার্যকলাপ দেখা যায়। প্রাইসে দ্রুত ওঠানামার কাড়নে আমাদের ট্রেড নির্বাচনের ওপর আমরা আস্থা হারিয়ে ফেলি, আমরা নিজেদের ট্রেডিং স্ট্রাটেজির ওপর প্রশ্ন উঠাই এবং সেই মুহূর্তে কোন কিছু পরিবর্তন করার প্রচেষ্টা করি।

মাথা ঠাণ্ডা রাখুন। আতঙ্ক আপনাকে শুরু বিভ্রান্ত করবে। লিজের লক্ষ্যের কথা ভুলবেন না। স্টপ লস এবং টেক প্রফিট অর্ডার ব্যাবহার করুন। যখন আপনি সুরক্ষিত অর্ডার প্লেস করবেন তার ওপর কায়েম থাকবেন।

লোভ

ফরেক্স ট্রেডাররা হচ্ছে অর্থ-ভিত্তিক মানুষ।  আয়ের পেছনে তারা ছোটে এবং আর্থিক সফলতার ওপর তারা প্রচুর পরিমানে গুরুত্তারোপ করে। এধরনের মধ্যপন্থার অনেক প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু যদি এসকল স্বাস্থ্যবান উদ্দীপনা/ড্রাইভ যদি অস্বাস্থ্যকর হয়ে দাড়ায়, তাহলে তা আর্থিক লসের কারন হতে পারে। আপনাকে নিজের লাভের ক্ষুধার ওপর নিয়ন্ত্রণ করতে শিখতে হবে। অন্যথায়, আপনি অর্থ হারানোর ঝুঁকি নেবেন।

এরকম যেন না হয়, সেজন্য আপনি সুশৃঙ্খল পন্থা ট্রেডের কার্যকলাপে ব্যাবহার করবেন যা আপনার ট্রেডের সিদ্ধান্তে আবেগের ভূমিকা কমিয়ে দেবে।

আনন্দ-চঞ্চল অবস্থা

মাঝেমাঝে ট্রেডাররা আনন্দ-চঞ্চল অবস্থায় পরে যায়। এরা পরপর কয়েকটি লাভের পরে তীব্র উত্তেজনা এবং উল্লাস অনুভব করে। ভবিষ্যতে আরও পাওয়ার আকাঙ্ক্ষা এবং প্রচুর পরিমানে ট্রেডের সুযোগ পাওয়ার কামনা করে। সহজ কথায়, তারা এই ধারনা করে যে তারা ফরেক্স ট্রেডিঙে নিখুঁত জেতার পন্থা খুঁজে পেয়েছে। কিন্তু দীর্ঘকালীন অবস্থায় তারা হতাশ হয়, কারন উজ্জ্বল রৌদ্রের পরে বৃষ্টি নামে। আস্তেআস্তে ট্রেডার এটা জানতে পারে যে কোন ধরনের মার্কেট অ্যানালিসিসই নিখুঁত নয়; পরবর্তী ট্রেড সর্বদা লাভজনক হবে না। আনন্দ-চঞ্চল অবস্থার সমাপ্তি ঘটবে, এবং ট্রেডার তার ভবিষ্যৎ কার্যকলাপে আরো সতর্ক হবে।

আত্মহারা হবেন না। সমানে জিতলে শিখুন যে কখন থামতে হবে। 

সফলভাবে ট্রেডের জন্য সঠিক মাইন্ডসেট নির্ধারণ করা

প্রথমটি হচ্ছে নিজের প্রাথমিক ট্রেডিং প্ল্যান মেনে চলা এবং মৌলিক ম্যানেজমেন্টের নিয়মানুযায়ী তা সঠিকভাবে এক্সিকিউট করা। নির্ধারিত কোন প্রণালী অনুসরন করুন আবেগ নয় যুক্তির ওপর নির্ভর করুন, কারন আবেগের বশে হয়তো আপনি সঠিকভাবে রিস্ক ম্যানেজমেন্টের কথা ভুলে যেতে পারেন। আপনাকে এই চিন্তা করতে হবে যে আপনি সঠিক সিদ্ধান্ত নিচ্ছে এবং পরিণাম যাই হোক তার চিন্তা আপনাকে করতে হবে না।

আপনার বুলিশ পজিশন ক্লোজ করার পরে যদি প্রাইস আরও বাড়তে থাকে তাহলে তার জন্য অনুশোচনা করবেন না। মার্কেট কোথাও যাচ্ছে না আর আপনি আয় করার আরও অনেক সুযোগ পাবেন।

কিছুকিছু লেখন “জোনের” কথা উল্লেখ করে – পজিটিভ মাইন্ড-সেট, মনোযোগী, এবং ট্রেডের নিয়মাবলী মেনে চলার কতগুলো সমন্বয় যা ট্রেডারকে দিনের পর দিন, বছরের পর বছর দারুন ফলাফল আনার ব্যাবস্থা করে দেবে।

লস সামলানো

লসের সম্মুখীন হতে হবে এই কথাটি মাথায় ঢুকিয়ে নিন। দুনিয়াতে এমন কোন ট্রেডার নেই যে কিনা প্রতি ট্রেডে লাভ করে।

এটা বুঝুন যে আপনি সময়কে পেছনে নিতে পারবেন না আর ট্রেড আবার এক্সিকিউট করতে পারবেন না। এটা এরকম যে আপনি ডায়েট করছেন আর চকলেট কেক খাচ্ছেন। একবার আপনি মিষ্টি খেয়ে ফেললে, আপনি যা করতে পারেন তা হচ্ছে জিমে ফেরত যেতে পারেন এবং তা ঠিক করতে ব্যায়াম করতে পারেন। ট্রেডিঙের বেলায়ও ঠিক একই অবস্থা। অর্থ হারালে, অ্যানালাইজ করে দেখুন যে কেন তা হয়েছে, বিচারবিবেচনা করুন এবং যে জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে তা দিয়ে ট্রেডিং সিস্টেমের উন্নয়ন করুন। আপনাকে হারানো অর্থ ফেরত আনতে হবে সেরকম চিন্তা করবেন না। লস গ্রহণ করতে শিখুন আর সামনে এগিয়ে চলুন। আপনার লক্ষ্য মার্কেটের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা নয়, বড়ং ফরেক্সে আয় করা।

সাইকোলজিক্যালি শক্তিশালী হওয়া

এটা মেনে নিন যে ভালো ফলাফলের জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। অল্প সময়ে আপনি প্রচুর পরিমানে লাভ করবেন এধরনের প্রতারনা যদি নিজের সাথে না করে থাকেন, তাহলে আপনি নিজেকে অহেতুক নিরাশা থেকে বাঁচাবেন এবং নিজের লক্ষ্যের দিকে মনোনিবেশ করতে পারবেন। মনে রাখবেন যে থমাস এডিশন ২,৯৯৯ বার গবেষণার পরে ইলেকট্রিক লাইট বাল্ব আবিষ্কার করেছিলো।

মানসিক চাপকে দূর করুন। ট্রেডিং থেকে বিরতি নিন এবং নিজের মনকে অন্য কোথাও লাগান। খেলাধুলা অথবা কমপক্ষে হেটে এবং ভালো খাবার খেয়ে স্বাস্থ্যকর জীবনব্যাবস্থা বজায় রাখুন। পরিবার এবং বন্ধুদের সাথে সময় অতিবাহিত করুন। এসবকিছু আপনাকে শিথিল হতে সহায়তা করবে এবং ট্রেডের সময় শক্তি জোগাবে।    

কয়েকজন সহ ট্রেডার খুঁজে নিন যাদের সাথে নিজের ভয় এবং সমস্যার কথাগুলো নিয়ে আলোচনা করতে পারেন। কথা বললে বাস্তবতার সম্মুখীন হবেন এবং মানসিক চাপ থেকে মুক্তি পাবেন।  

ফরেক্স মার্কেট এবং ট্রেডিং সম্পর্কে ধারাবাহিকভাবে জ্ঞান অর্জন করতে থাকবেন। কোর্স করুন, বই এবং আর্টিকেল পড়ুন, প্রফেশনালদের কাছ থেকে শিখুন। ট্রেডিং সম্পর্কে আপনি যতো বেশী জানবেন, আপনি সাইকোলজিক্যালি ততো ভালো অনুভব করবেন।

Linda Raschke এর বিজয়ের সূত্র

জনপ্রিয় ট্রেডিং কোচ Linda Raschke তার বই “প্রফেশনাল ট্রেডিং টেকনিকস” এ সফলভাবে ট্রেডের বিশেষ একটি সূত্র আবিষ্কার করেছেন।

তাই, ফরেক্সে বেশী আয় করতেঃ

নিয়ন্ত্রণযোগ্য আবেগ – আপনার এমন আবেগ থাকতে হবে যা আপনাকে সফল হতে অনুপ্রেরনা জোগাবে।

আস্থা – আপনার এই বিশ্বাস থাকতে হবে যে আপনি আপনার লক্ষ্য অর্জন করতে পারবেন।

গেম প্ল্যান - আপনার লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য কোন ধরনের স্ট্রাটেজি অথবা প্ল্যান থাকা লাগবে। শৃঙ্খলা এবং প্রস্তুতির অভাব হচ্ছে ব্যার্থ ট্রেডের মূল কারন।

সততা – আপনার নিজের জন্য ব্যাক্তিগত মান বজায় রাখার ব্যাবস্থা করবেন।

প্রতিশ্রুতি – মনে রাখবেন যে প্রতিশ্রুতি আমাদের মাঝের সীমাহীন শক্তির দোয়ার খুলে দেয়। এটা আমাদের প্রতিদিন সামনে এগিয়ে যেতে শক্তি যোগায়, যদিও সেখানে কোন দৃশ্যমান উন্নতি না দেখা যায়।

 

 

জনপ্রিয়

ইউকে সিপিআই

১৭ই অক্টোবর এমটি সময় ১১:৩০ মিনিটে ইউকে তার সিপিআই ডাটা প্রকাশিত করবে।

ইসিবি মিটিং

২৬শে অক্টোবর ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের মিটিঙের জন্য ট্রেডাররা অধীরভাবে অপেক্ষা করছে। এমটি সময় ১৪:৪৫ মিনিটে নিয়ন্ত্রকরা তাদের মনেটারি পলিসির সিদ্ধান্ত প্রকাশিত করবে। ইসিবির সভাপতি মারিও দ্রাঘি এমটি সময় ১৫:৩০ মিনিটে সংবাদ সম্মেলনে অংশগ্রহন করবেন। 

আরবিএ মিটিং

AUD এর জন্য রিজার্ভ ব্যাংক অফ অস্ট্রেলিয়ার (আরবিএ) পলিসি হচ্ছে একটি মূল চালিকা। এর নিয়ন্ত্রকরা আবারো তাদের মনেটারি পলিসির সিদ্ধান্ত প্রদান করবে ৭ই নভেম্বর এমটি সময় ০৫:৩০ টায়। 

যেসকল প্রোমোশনে আপনার আগ্রহ থাকতে পারে

লোকাল পেমেন্ট সিস্টেম দিয়ে ডিপোজিট করুন

কলব্যাক

ম্যানেজার শীঘ্রই ফোন দেবে।

নম্বর পরিবর্তন করুন

আবেদন গ্রহন হয়েছে

ম্যানেজার শীঘ্রই ফোন দেবে।

অভ্যান্তরীন ত্রুটি দেখা দিয়েছে। অনুগ্রহ করে কিছুক্ষণ পরে আবার চেষ্টা করুন

আপনি পুরনো ভার্সনের ব্রাউজার ব্যাবহার করছেন।

লেটেস্ট ভার্সনে আপডেট করুন অথবা অন্য একটি ব্যাবহার করুন সুরক্ষিত, আরো সুবিধাজন এবং ফলদায়ক ট্রেডের অভিজ্ঞতার জন্য।

Safari Chrome Firefox Opera