Financial Asset

ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেট

অ্যাসেট হচ্ছে সাধারন যেকোনো জিনিস যার মূল্য অর্থনৈতিক সম্পদ অথবা মালিকানা চিত্রিত করে যা মূল্যবান কোন কিছুতে পরিবর্তন করা যায় যেমন অর্থ। 
ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেট হচ্ছে অস্পৃশ্য তরল অ্যাসেট যেমন ব্যাংক ডিপোজিট, বণ্ডস এবং স্টক যার খরচ যা সেগুলো চিত্রিত করে তার চুক্তিগত দাবি থেকে নিষ্পন্ন হয়। সম্পত্তি অথবা কমোডিটির বিপরীতে এগুলো দলিলী কাগজ ছাড়া স্পৃশ্য কায়িক সম্পদ নয়।.

'ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেট' ধাপে ধাপে ব্যাখ্যা

যেহেতু ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেট অস্পৃশ্য, সেগুলোর কোন কায়িক উপস্থিতি নেই শুধুমাত্র দলিল ছাড়া যা অ্যাসেটের মালিকানায় দখলী রয়েছে তা চিত্রিত করে। এটা জরুরী যে কাগজ এবং সার্টিফিকেট যা ফাইনাস্যিয়াল অ্যাসেটকে চিত্রিত করে তাদের কোন নিহিত মূল্য থাকে না যতক্ষণ পর্যন্ত না তাকে অর্থে পরিবর্তন করা হয়। দলিল যেটি মালিকানা প্রত্যয়ন করে তার মূল্য অ্যাসেটের মূল্য থেকে নিয়ে থাকে। এই নির্বিশেষে সত্য যে ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেট কায়িক আকারে থাকে না, আর সেগুলো ব্যালেন্স শিটে লেখা হয়, যাতে তার যে মূল্য রয়েছে তা উল্লেখ করতে পারে।

ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেটের ধরন

প্রচলিত ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেটের ধরনের মধ্যে রয়েছে সার্টিফিকেট, বন্ড, স্টক এবং ব্যাংক ডিপোজিট।
সার্টিফিকেট অফ ডিপোজিট (সিডি) অথবা আমানতের সনদ পত্র হচ্ছে বিনিয়োগকারী এবং ব্যাংকের মধ্যের একটি চুক্তি যেখানে বিনিয়োগকারী এই মর্মে সম্মতি প্রদান করে যে সে নিশ্চিত ইন্টেরেস্ট রেটের বিনিময়ে ব্যাংকে নির্দিষ্ট পরিমানের অর্থ সঞ্চয় করবে। ব্যাংক আবার উচ্চ পরিমানের ইন্টেরেস্ট রেট প্রদান করতে পারে কারন অর্থ নির্ধারিত সময়ের জন্য বিনিয়োগকারী ব্যাবহার করবে না। বিনিয়োগকারী যদি চুক্তির শর্তাবলীর আগে সিডি উত্তোলন করে ফেলে, তাহলে সে ইন্টেরেস্ট পেমেন্ট হারাবে এবং আর্থিক জরিমানার আওতাভুক্ত হতে পারে।
ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেটের আরেকটি ধরন হচ্ছে বন্ডস, যা সাধারনত কোম্পানি অথবা সরকার কতৃক বিক্রয় করা হয় যা শর্ট-টার্মের প্রকল্পের অর্থায়নে সহায়তা করতে পারে। বন্ড হচ্ছে একটি আইনি দলিল যা উল্লেখ থাকে যে বিনিয়োগকারী দেনাদারকে কতো পরিমান অর্থ ধার দিয়েছে আর কখন সেটা (ইন্টেরেস্ট সহকারে) ফেরত দেয়া হবে এবং বণ্ডের পরিপক্কতা তারিখ থাকে।
স্টক হচ্ছে একমাত্র ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেট যার কোন সম্মত হওয়া শেষ তারিখ নেই। স্টকে বিনিয়োগ ডিপোজিটকারীদের কোম্পানির মালিকানার একাংশ প্রদান করে এবং সে কোম্পানির লাভ ও লস শেয়ার করে থাকে। স্টক যেকোনো সময়সীমার জন্য ধরে রাখা যেতে পারে যতক্ষণ পর্যন্ত না শেয়ারহোল্ডার তা অন্য কোন বিনিয়োগকারীকে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেয়।

ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেটের সুবিধা এবং অসুবিধা

ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেটের মূল কাজ হচ্ছে, যা ওপরে আলোচনা করা হয়েছে, তা হচ্ছে আয় বৃদ্ধির প্রক্রিয়া। বিনিয়োগ অথবা অপারেটিং কার্যক্রমের মাধ্যমে অবিচল আয় বৃদ্ধি করার সক্ষমতা হচ্ছে ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেটের মূল বৈশিষ্ট্য।
অ্যাসেট ব্যাবহারের প্রক্রিয়ায় যে মূল্য ধরা হয় তা বোঝা জরুরী, কারন তার সাথে লিকুইডিটির সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে। এখানে আমরা অ্যাসেটের নীতির কথা বলছি যা তরল হওয়ার কথা। এরমানে হচ্ছে যে আপনি তা ন্যায্য বাজার মূল্যে অর্থে রূপান্তর করতে পারেন। এই বৈশিষ্ট্য অনেক গুরুত্ব রাখে কারন এটা প্রতিকূল অবস্থায় কোম্পানির পুনর্গঠনের সময় নিশ্চয়তা প্রদান করে।
ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাকাউন্ট যেমন চেকিং অ্যাকাউন্ট, সেভিংস অ্যাকাউন্ট এবং মানি মার্কেট অ্যাকাউন্ট থেকে সহজেই অর্থের রূপান্তর করা যায় যা দিয়ে বিল প্রদান এবং পারিবারিক ফাইনান্স্যিয়াল চাহিদা পূরণ করা যায়, যেমন প্লাম্বিঙ্গের কাজ। তরল অ্যাসেটে অবিবেকী বিনিয়োগের ফলে অর্থের ঘাটতি হতে পারে এবং উচ্চ-ইন্টেরেস্টের ক্রেডিট কার্ড ব্যাবহার করে বিল প্রদান, অবধারিতরূপে ঋণ বাড়াবে এবং বিনিয়োগকারীর সামগ্রিক আর্থিক অবস্থার নেতিবাচকভাবে প্রভাব ফেলবে। স্টকের ক্ষেত্রে, অর্থ পেতে হলে বিনিয়োগকারীকে স্টক বিক্রি করতে হবে এবং নিষ্পত্তির তারিখ এর অপেক্ষা করতে হবে আর এটা করা ভালো যেন জরুরী অবস্থায় আরেকটি ফাইনান্স্যিয়াল অ্যাসেট উপলব্ধ থাকে।
অন্য দিকে, সেভিং অ্যাকাউন্টে অর্থ জমা রাখার কারনে বৃহত্তর মূলধন সংরক্ষণ হতে পারে। সকল ফাইনান্স্যিয়াল প্রতিষ্ঠানে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সম্পর্কিত সকল ফাইনান্স্যিয়াল ঝুঁকি সাধারনত ফেডারেল ডিপোজিট ইনস্যুরেন্স কর্পোরেশন (FDIC) দ্বারা কভার করা হয়ে থাকে এবং লসের বিপরীতে ডিপোজিট বীমা করা থাকে। তরল অ্যাসেটে বেশী বিনিয়োগ করলে তা বিনিয়োগকারীদের এগ্রেসিভ অ্যাসেট যেমন রিয়েল এস্টেট অথবা ফরেক্স মার্কেটে বেশী নিশ্চয়তার সাথে ট্রেড করার সুযোগ প্রদান করে।
এ সত্ত্বেও চেকিং অ্যাকাউন্ট এবং সেভিংস অ্যাকাউন্টকে তরল অ্যাসেট হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়, এগুলোর বেশী সীমিত রিটার্ন অফ ইনভেস্টমেন্ট থাকে। একই সময়ে, সিডি এবং মানি মার্কেট অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ উত্তোলন কয়েক মাস অথবা বছরের জন্য সীমাবদ্ধ করে দেয়। ইন্টেরেস্ট রেট যখন পরে যায়, ফেরতযোগ্য সিডি প্রায়ই ফেরত চাওয়া হয়, আর বিনিয়োগকারীরা তাদের অর্থ সম্ভাব্য কম-আয়ের বিনিয়োগে খাটায়। 
নিজের অর্থের একাংশ ভিন্ন ভিন্ন ধরনের খাতে বিনিয়োগে বিন্যস্ত করলে তা দিয়ে লাভ হতে পারে যদিও সেগুলোর কিছু পরিমাপ না করা হয়। প্রত্যেক ধরনের বিনিয়োগের নিজস্ব সম্ভাব্য ঝুঁকি এবং পুরস্কার রয়েছে। ভিন্ন ভিন্ন খাতে বিনিয়োগ মেশালে, আপনি নিজের পোর্টফলিওকে বহুমুখী করতে পারেন। এটা করা উপকারী কারন এটা ঝুঁকি কমায় এই ধারনার ওপর যে আপনি নিজের সম্পূর্ণ বিনিয়োগ এক ধরনের বিনিয়োগে খাটাচ্ছেন।

ফেরত যান

লোকাল পেমেন্ট সিস্টেম দিয়ে ডিপোজিট করুন

Learn more

কলব্যাক

ম্যানেজার শীঘ্রই ফোন দেবে।

নম্বর পরিবর্তন করুন

আবেদন গ্রহন হয়েছে

ম্যানেজার শীঘ্রই ফোন দেবে।

অভ্যান্তরীন ত্রুটি দেখা দিয়েছে। অনুগ্রহ করে কিছুক্ষণ পরে আবার চেষ্টা করুন

নতুনদের জন্য ফরেক্স বই

Beginner Forex book will guide you through the world of trading.

নতুনদের জন্য ফরেক্স বই

ট্রেডিং শুরু করতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিসসমূহ
আপনার ই-মেইল দিন, আর আমরা আপনাকে ফ্রি ফরেক্স গাইডবুক প্রেরন করবো

ধন্যবাদ!

আমরা আপনার ই-মেইলে বিশেষ একটি লিংক প্রেরন করেছি।
সেই লিংকে ক্লিক করে ইমেইল নিশ্চিত করুন আর নতুনদের জন্য ফ্রি ফরেক্স গাইডবুক নিয়ে নিন।

আপনি পুরনো ভার্সনের ব্রাউজার ব্যাবহার করছেন।

লেটেস্ট ভার্সনে আপডেট করুন অথবা অন্য একটি ব্যাবহার করুন সুরক্ষিত, আরো সুবিধাজন এবং ফলদায়ক ট্রেডের অভিজ্ঞতার জন্য।

Safari Chrome Firefox Opera