টেকনিক্যাল ইনডিকেটরঃ ডাইভারজেন্স ট্রেডিং

টেকনিক্যাল ইনডিকেটরঃ ডাইভারজেন্স ট্রেডিং

ডাইভারজেন্স হচ্ছে সবচেয়ে কার্যকরী ট্রেডের ধারনার মধ্যে একটি যা নির্ভরযোগ্য এবং উচ্চ-মানের ট্রেডিং সিগন্যাল প্রদান করে থাকে। সবচেয়ে অদ্ভুত ব্যাপার হলো এটার যথাযথতা অসিলেটরের ল্যাগিং অ্যাকশনের ভিত্তিতে কাজ করে।

ডাইভারজেন্স অনেক ট্রেডারের স্ট্রাটেজির বিশাল একটি অংশ। কেউ কেউ তা লাভজনক এন্ট্রি পয়েন্ট চিনহিত করতে ব্যাবহার করে, অন্যরা পজিশন থেকে বের হওয়ার সঠিক সময়ের জন্য ব্যাবহার করে। এই টিউটোরিয়ালে, আমরা আপনাদের বলবো যে কিভাবে এই ক্রস-ফাংশনাল ট্রেডিং প্যাটার্ন চিনহিত করতে হয় এবং ট্রেড করতে হয়।

ডাইভারজেন্সঃ সংজ্ঞা

ডাইভারজেন্স কিভাবে চিনহিত করা যায় তা দিয়ে শুরু করা যাক। মূলত, ডাইভারজেন্স মানে হচ্ছে যে প্রাইস চার্ট এবং টেকনিক্যাল ইনডিকেটর (অসিলেটর) যা আপনি মার্কেট অ্যানালাইজের জন্য ব্যাবহার করে থাকেন তা বিপরীত দিকে যাচ্ছে। আপনার এটা বোঝার জন্য এটি হচ্ছে প্রথম সিগন্যাল যা বলবে যে আপনার চার্টে "কিছু একটা" ঘটছে।

ডাইভারজেন্স বুলিশ অথবা বিয়ারিশ হতে পারে। 

বিয়ারিশ ডাইভারজেন্স দেখা যায় যখন প্রাইস চার্টে হায়ার হাই তৈরি করে, আর ইনডিকেটর লোয়ার লো তৈরি করে। এধরনের বিয়ারিশ ডাইভারজেন্সের পরে প্রাইস সাধারনত নিচের দিকে মুভ করেঃ প্রাইসের নিচের ইনডিকেটরকে ধরার জন্য। 

বুলিশ ডাইভারজেন্স (আরেক নাম "কনভারজেন্স") দেখা যায় যখন প্রাইস চার্টে লোয়ার লো তৈরি করে, আর ইনডিকেটর ইনডিকেটর হায়ার হাই তৈরি করে। প্রাইস খুব শীঘ্রই ওঠা শুরু করবে তার প্রথম ইঙ্গিত এটিঃ প্রাইসকে ইনডিকেটরের হাইয়ের সাথে গিয়ে মিলতে হবে। 

লক্ষ্য করবেন যখন আমরা বিয়ারিশ ডাইভারজেন্সের কথা বলি তখন আমরা প্রাইস চার্টে হাইয়ের দিকে লক্ষ্য করি। যখন বিয়ারিশ ডাইভারজেন্সের কথা বলি, তখন লোয়ের কথা বলি।

ক্ল্যাসিক ডাইভারজেন্স ছাড়াও, আরেকটি রয়েছে যাকে হিডেন ডাইভারজেন্স বলা হয়ে থাকে।

হিডেন বিয়ারিশ ডাইভারজেন্স দেখা যায় যখন প্রাইস চার্টে লোয়ার হাই তৈরি করে, আর ইনডিকেটর হায়ার হাই তৈরি করে। প্রাইস চার্টে নতুন হাই এর অনুপস্থিতি দেখায় যে বুলরা তাদের শক্তি হারাচ্ছে। অসিলেটর হায়ার হাই থাকা সত্ত্বেও উপরের দিকের মুভমেন্ট সম্ভাব্য রিট্রেসমেন্ট হতে পারে। এই মুভমেন্ট উচ্চ লেভেলে সেল করার সুযোগ করে দেয়।

হিডেন বুলিশ ডাইভারজেন্স দেখা যায় যখন প্রাইস চার্টে হায়ার লো তৈরি করে, আর ইনডিকেটর লোয়ার লো তৈরি করে। প্রাইস চার্টে নতুন লো এর অনুপস্থিতি দেখায় যে বিয়াররা তাদের শক্তি হারাচ্ছে। অসিলেটরে লোয়ার লো থাকা সত্ত্বেও নিচের দিকের মুভমেন্ট সম্ভাব্য রিট্রেসমেন্ট হতে পারে। এই মুভমেন্ট লোয়ার লেভেলে বাই করার সুযোগ করে দিতে পারে।

অভিজ্ঞতা বলে যে হিডেন ডাইভারজেন্স চিনহিত করার চেয়ে ক্ল্যাসিক ডাইভারজেন্স চিনহিত করাটা সহজ।

ধরন

প্রাইস

অসিলেটর

বর্ণনা এবং ট্রেডিং

ক্ল্যাসিকঃ রিভার্সাল আশা করুন

বিয়ারিশ

হায়ার হাই

লোয়ার হাই

নিচের দিকে সম্ভাব্য রিভার্সাল

বুলিশ

লোয়ার লো

হায়ার লো

ওপরের দিকে সম্ভাব্য রিভার্সাল

হিডেনঃ কারেকশন এবং কন্টিনিউয়েশনের আশা করতে পারেন

বিয়ারিশ

লোয়ার হাই

হায়ার হাই

সম্ভবত ডাউন্ট্রেন্ড শুরু হতে পারে

বুলিশ

হায়ার লো

লোয়ার লো

সম্ভবত আপন্ট্রেন্ড শুরু হতে পারে

ডাইভারজেন্স সাধারনত প্রাইস কারেকশন এবং রিভার্সালের জন্য ব্যাবহার হয়ে থাকে। এগুলো সাধারনত আসল প্রাইস অ্যাকশনের আগে দেখা যায়। এটা হচ্ছে এমন একটি জিনিস যা একে এতো কার্যকরী করে তোলে এবং ট্রেডারদের উদীয়মান প্রাইসের একেবারে শুরুতে ট্রেডে এন্ট্রি নেয়ার সুযোগ করে দিতে পারে।

ক্ল্যাসিক ডাইভারজেন্স দিয়ে কিভাবে ট্রেড করবেন

ডাইভারজেন্স ট্রেডিঙের জন্যঃ আপনাকে যেকোনো একটি অসিলেটর চার্টে বসাতে হবেঃ স্টকাস্টিকস, রিলেটিভ স্ট্রেনথ ইনডেক্স (আরএসআই), মুভিং অ্যাভারেজ কনভারজেন্স ডাইভারজেন্স (ম্যাকডি)।

আপনি যেই ইনডিকেটরই বেছে নেন না কেন, আমাদের উপদেশ হবে যে আপনি সবসময় ট্রেড দেয়ার আগে স্টপ লস অর্ডার নির্ধারণ করে নেবেন। ডাইভারজেন্স ট্রেডের বেলায়ও এতে কোন ভিন্নতা নেই। আপনি সর্বশেষ টপের ওপরে স্টপ লস অর্ডার দিতে পারেন যেটা চার্টে বিয়ারিশ ডাইভারজেন্স দেখা নিশ্চিত করছে। আপনি যদি বুলিশ ডাইভারজেন্সের ওপর কাজ করেন, তাহলে আপনি স্টপ লস চার্টের শেষ বটমের নিচে দেবেন।

টেক প্রফিট অর্ডার বসানোর জন্য হয়তো আপনাকে অন্য ইনডিকেটর ব্যাবহার করতে হতে পারে (বিশেষকরে আপনি যদি আরএসআই এবং স্টোকাস্টিকস দিয়ে ট্রেড করে থাকেন)। আপনি সুইং অ্যানালিসিস অথবা সাপোর্ট/রেজিস্ট্যান্স লেভেল টেক প্রফিটের জন্য ব্যাবহার করতে পারেন। কিন্তু, আপনি যদি ডাইভারজেন্স ট্রেডের জন্য ম্যাকডি ব্যাবহার করে থাকেন, তাহলে আপনি অন্য কোন সম্পূরক ট্যুল ছাড়াই এই অসিলেটরের ওপর সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করতে পারেন। যখন ম্যাকডির সিগন্যাল লাইন ওপর থেকে নিচের দিকে ক্রস করে, সেটা বুলিশ পজিশন ক্লোজের সিগন্যাল প্রদান করে থাকে। যখন ম্যাকডির সিগন্যাল লাইন নীচ থেকে ওপরের দিকে ক্রস করে, সেটা বিয়ারিশ পজিশন ক্লোজের সিগন্যাল প্রদান করে থাকে।

ম্যাকডি দিয়ে ডাইভারজেন্স ট্রেডের একটি উদাহরন দেয়া হলো।

divergence.png 

ধরুন আপনি প্রাইস চার্ট এবং ম্যাকডিতে একটি বুলিশ ডাইভারজেন্স (কনভারজেন্স) পেলেন। তারসাথে, আপনি ম্যাকডি উইন্ডোতে একটি বুলিশ ক্রসওভার লক্ষ্য করলেন। আপনি এই প্রাইসের ডাইভারজেন্সকে দিয়ে লং পজিশন ওপেনের সিগন্যাল হিসেবে ব্যাবহার করবেন। স্টপ লস অর্ডার দিতে হবে প্রাইসের শেষ বটমের নিচে। ট্রেড ক্লোজ করবেন যখন ম্যাকডি অসিলেটরে বিয়ারিশ ক্রসওভার ফর্ম করবে। 

এই সেকশনের অন্যান্য আর্টিকেল

জনপ্রিয়

ইউকে সিপিআই

১৭ই অক্টোবর এমটি সময় ১১:৩০ মিনিটে ইউকে তার সিপিআই ডাটা প্রকাশিত করবে।

ইসিবি মিটিং

২৬শে অক্টোবর ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের মিটিঙের জন্য ট্রেডাররা অধীরভাবে অপেক্ষা করছে। এমটি সময় ১৪:৪৫ মিনিটে নিয়ন্ত্রকরা তাদের মনেটারি পলিসির সিদ্ধান্ত প্রকাশিত করবে। ইসিবির সভাপতি মারিও দ্রাঘি এমটি সময় ১৫:৩০ মিনিটে সংবাদ সম্মেলনে অংশগ্রহন করবেন। 

আরবিএ মিটিং

AUD এর জন্য রিজার্ভ ব্যাংক অফ অস্ট্রেলিয়ার (আরবিএ) পলিসি হচ্ছে একটি মূল চালিকা। এর নিয়ন্ত্রকরা আবারো তাদের মনেটারি পলিসির সিদ্ধান্ত প্রদান করবে ৭ই নভেম্বর এমটি সময় ০৫:৩০ টায়। 

যেসকল প্রোমোশনে আপনার আগ্রহ থাকতে পারে

লোকাল পেমেন্ট সিস্টেম দিয়ে ডিপোজিট করুন

কলব্যাক

ম্যানেজার শীঘ্রই ফোন দেবে।

নম্বর পরিবর্তন করুন

আবেদন গ্রহন হয়েছে

ম্যানেজার শীঘ্রই ফোন দেবে।

অভ্যান্তরীন ত্রুটি দেখা দিয়েছে। অনুগ্রহ করে কিছুক্ষণ পরে আবার চেষ্টা করুন

আপনি পুরনো ভার্সনের ব্রাউজার ব্যাবহার করছেন।

লেটেস্ট ভার্সনে আপডেট করুন অথবা অন্য একটি ব্যাবহার করুন সুরক্ষিত, আরো সুবিধাজন এবং ফলদায়ক ট্রেডের অভিজ্ঞতার জন্য।

Safari Chrome Firefox Opera